দূরপাল্লার ট্রেনে অর্ধেক আসন ফাঁকা থাকলে ভাড়ায় ২৫ শতাংশ ছাড়, অভিনব ভাবনা রেলের

যাত্রীসংখ্যা বাড়াতে অভিনব উদ্যোগ রেলের। দূরপাল্লার ট্রেনগুলিতে যাত্রী টানতে এবার ২৫ শতাংশ পর্যন্ত টিকিটে ছাড় দেওয়ার ভাবনা ভারতীয় রেলের।
বিমান বা দূরপাল্লার ভলভো এসি বাসের সঙ্গে পাল্লা দিতে এবং ট্রেনের খালি আসন ভরানোর লক্ষ্যে টিকিটে বিশেষ ছাড়ের সুবিধা দিতে চলেছে রেল। সূত্রের খবর, শতাব্দী এক্সপ্রেস, গতিমান এক্সপ্রেস, তেজস এক্সপ্রেস, ইন্টারসিটি এক্সপ্রেসের মতো ট্রেনগুলির এসি কোচ ও চেয়ারকারের ভাড়ায় বিশেষ ছাড় দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রেলের এক শীর্ষ আধিকারিক জানান, মঙ্গলবার এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জোনাল ম্যানেজারদের কাছে পাঠানো হয়েছে। ট্রেনে যাত্রী সংখ্যা বাড়ার পাশাপাশি এই উদ্যোগে অন্যান্য পরিবহণ মাধ্যমকেও কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলা যাবে বলে মনে করছেন রেল কর্তারা।
অনেক সময় বেশ কিছু ট্রেনে দূর পাল্লার যাত্রায় প্রায় ৫০ শতাংশ আসন ফাঁকা থাকে। ওই আসনগুলি ভরাতে নির্দিষ্ট ভাড়ার ওপর ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। রেলের তরফে জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বিভিন্ন রুটের ট্রেনে ছাড়ে তারতম্য হতে পারে। কোনও ট্রেনে এক বছর পর্যন্ত ভাড়ায় ছাড় দেওয়া যেতে পারে। আবার কোনও ট্রেনে মাসিক ভিত্তিতে বা কোনও বিশেষ মরসুম কিংবা সপ্তাহান্তেও এই ডিসকাউন্ট দেওয়া হতে পারে। রেল সূত্রে খবর, যদি কোনও নির্দিষ্ট ট্রেনে গোটা যাত্রা জুড়েই বেশিরভাগ আসন ফাঁকা পড়ে থাকে, কিংবা কোনও বিশেষ স্টেশন থেকে অন্য একটি স্টেশন অবধি আসন খালি থাকে সেক্ষেত্রে ডিসকাউন্ট চালু করা যেতে পারে। রেলের এক শীর্ষ আধিকারিক একটি উদাহরণ দিয়ে জানান, নিউ জলপাইগুড়ি-হাওড়া শতাব্দী এক্সপ্রেসে মালদা টাউন থেকে হাওড়া পর্যন্ত বহু আসন খালি পড়ে থাকে, সে সময় ওই নির্দিষ্ট স্টেশন থেকে ভাড়ায় ছাড় দেওয়া যেতে পারে। পাশাপাশি, বেশ কিছু জায়গায় যাত্রীরা গন্তব্যে পৌঁছতে বিমান কিংবা ভলভো বাস পছন্দ করেন। ওইসব জায়গায় বিমান বা ভলভোর চেয়ে কম ভাড়া চালু করে যাত্রী টানতে উদ্যোগ নিচ্ছে ভারতীয় রেল।
কোন কোন ট্রেনের আসন সংখ্যা সাধারণত খালি কিংবা কম থাকে, আগামী ৩০ শে সেপ্টেম্বরের মধ্যে এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট জমা দেওয়ার জন্য রেলের সবকটি জোনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তারপরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Comments
Loading...