ত্রিপুরায় ২১ জুলাই নেত্রীর বার্তা শুনতে বাধা বিপ্লব দেবের সরকারের, গ্রেফতার

ত্রিপুরায় ২১ জুলাইয়ের অনুষ্ঠানে বাধা দিল ত্রিপুরার বিপ্লব দেবের সরকার। রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখায় ত্রিপুরা শাখার নেতা আশিসলাল সিনহার নেতৃত্বে কয়েকজন তৃণমূল সমর্থক। এরপর পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন আশিসলাল সিনহা সহ আরও ৮২ জন তৃণমূল সমর্থক।

আগেই জানা গিয়েছিল, দিল্লি সমেত উত্তর-পূর্ব ভারতের বিভিন্ন জায়গায় পালন করা হবে এবারের ২১ জুলাই। জায়ানাত স্ক্রিন লাগিয়ে শোনানো হবে মমতা ব্যনার্জির ভাষণ। রাজধানী আগরতলা সহ কয়েকটি জেলায় বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ভাষণ শোনানোর ব্যাবস্থা করে তৃণমূল। কিন্তু বুধবার সকালেই জানা যায়, কোভিডের জন্য ত্রিপুরায় শহিদ দিবস পালনের অনুমতি দেয়নি বিজেপি সরকার। জেলাগুলি থেকে অনুমতি দেননি জেলাশাসক। ত্রিপুরায় কোভিডের জন্য দুপুর ২ টো থেকে কার্ফু জারি করা হয়। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়, সেইকারণেই অনুমতি দেওয়া হয়নি। কিন্তু ত্রিপুরার তৃণমূল সমর্থকদের দাবি, রাজ্যে মমতা ব্যানার্জির ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে, এটা আশঙ্কা করেই বিজেপি ভয় পেয়েছে। তাই শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান বানচাল করতে চাইছে।

গ্রেফতার হওয়া নেতা কর্মীদের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়।

Comments
Loading...