অমিত মালব্যকে নুসরৎ: বাংলা ভাষা শিখুন, বাঙালিকে ভালবাসুন, এখানে মিথ্যাচার চলে না, কটাক্ষ ধনখড়কেও

বাংলা ভাষা শিখুন। বাংলার শিক্ষা-সংস্কৃতি জানুন আর অবশ্যই বাংলার মানুষকে ভালবাসুন। ঠিক এই ভাষাতেই রাজ্যে বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক অমিত মালব্যকে কটাক্ষ করলেন বসিরহাটের সাংসদ নুসরৎ জাহান।  

সোমবার দুপুরে বাঁকুড়ার সভা থেকে যখন বাংলার কর্মসংস্থান নিয়ে বক্তব্য রাখছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি, ঠিক সেই সময় তৃণমূল সরকারকে কটাক্ষ করে একটি ট্যুইট করেন বাংলায় বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক তথা বিজেপি আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য। তিনি ট্যুইটারে লেখেন, ‘মমতা ব্যানার্জি তাঁর মুখ্যমন্ত্রিত্বের শেষ পর্যায় এসে ৩৫ লক্ষ চাকরির প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। কিন্ত বাস্তব হল তৃণমূল কংগ্রেসের দুর্নীতি এবং সিন্ডিকেট নীতি, অবশিষ্ট কাজও যুবক-যুবতীদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে।’ তিনি লেখেন, CMIE এর তথ্য অনুযায়ী ২০১৬ অক্টোবর থেকে ২০২০ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে ২১৭ শতাংশ।

এদিন সাংবাদির বৈঠক থেকে পাল্টা উত্তর দিলেন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ। কর্মসংস্থান ইস্যুতে কেন্দ্র সরকারকে বিঁধলেন তিনি। তারকা সাংসদের খোঁচা, ‘নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন বছরে ২ কোটি কর্মসংস্থান হবে। কিন্তু একটিও হয়নি। এখন দিলীপ ঘোষও একই কথা বলছেন। এই মিথ্যাচার বাংলায় চলবে না। বাংলার মানুষ অশিক্ষিত নন।’ 

নুসরৎ কটাক্ষ করে বলেন, রাজনীতির কথা না বলে এদিন যুবকদের কর্মসংস্থানের খতিয়ান দেবেন। তাঁর দাবি, বাংলায় ৪০ শতাংশ বেকারত্ব কমার পাশাপাশি সবমিলিয়ে ১ কোটি রোজগারের ব্যবস্থা করেছে মমতা ব্যানার্জির সরকার। নুসরতের কটাক্ষ, বাংলা দখলের স্বপ্ন দেখার আগে বাংলা ভাষা এবং শিক্ষা সম্পর্কে বিজেপিকে ওয়াকিবহাল হতে হবে। 

আগেও নুসরতের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবাদে জড়িয়েছেন অমিত মালব্য। এবার নতুন দায়িত্ব পেয়ে বাংলায় এসেই নতুন করে বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়লেন তাঁরা।  

এদিকে সম্প্রতি গরুপাচার এবং কয়লা কাণ্ড, দুর্নীতি নিয়ে রাজ্য প্রশাসনকে তীব্র আক্রমণ করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সোমবার তৃণমূল ভবন থেকে তারও উত্তর দেয় তৃণমূল। রাজ্যপাল আসলে বিজেপির মুখপাত্র বলে কটাক্ষ নুসরত জাহানের।

Comments
Loading...