কর্ণাটকে ভোটের পর টানা দাম বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের। লিটার প্রতি দাম বাড়বে আরও অন্তত ৪ টাকা।

কর্ণাটকে ভোটের পর টানা পাঁচ দিন দাম বাড়ল পেট্রল-ডিজেলের। আগামী কিছু দিনের মধ্যে তেলের দাম লিটার প্রতি আরও অন্তত ৪ টাকা বাড়বে বলে সূত্রের খবর।
বিরোধীরা মাঝে মাঝেই অভিযোগ করে থাকে, ‘দেশে একমাত্র বিজেপির আচ্ছে দিন এসেছে। আর বিজেপির আচ্ছে দিন মানে, সাধারণ মানুষের বুঢ়া দিন।’ কিন্তু সত্যিই কি তাই? অন্তত কর্ণাটকে বিধানসভা ভোট, ভোটের রেজাল্ট বেরনো এবং তারপর বিজেপির সরকার গড়ার পর যেভাবে দেশে পেট্রল, ডিজেলের দাম বাড়ছে তাতে এই অভিযোগ নিয়ে ফের সুর চড়াচ্ছে বিরোধীরা।
কর্ণাটকে নির্বাচন ছিল ১২ মে। তার আগে টানা প্রায় তিন সপ্তাহ রাষ্টায়ত্ত তেল সংস্থাগুলি তেলের দাম বাড়ায়নি। তখনই সংশয় প্রকাশ করেছিলেন বিশেষজ্ঞা। কিন্তু নির্বাচন মিটে যাওয়ার পরই শুরু হল রোজ তেলের দাম বৃদ্ধি। ১৪ মে থেকে ১৮ মে শুক্রবার পর্যন্ত টানা পাঁচ দিন দাম বেড়েছে পেট্রল-ডিজেলের। এক এক শহরে একএকরকম হারে।
শুক্রবার সকাল ৬টায় পেট্রল-ডিজেলের নতুন বর্ধিত দাম ঘোষিত হয়েছে। তাতে দিল্লিতে পেট্রলের দাম লিটার প্রতি ৭৫.৬১ টাকা, কলকাতায় ৭৮.২৯ টাকা, মুম্বইয়ে ৮২.৪৮ টাকা এবং চেন্নাইয়ে ৭৭.৪৩ টাকা। পেট্রলের এই দাম গত পাঁচ বছরে সর্বোচ্চ। ১৩ মে এই দাম ছিল দিল্লিতে ৭৪.৬৩ টাকা, কলকাতায় ৭৭.৩২ টাকা, মুম্বইয়ে ৮১.৪১ টাকা এবং চেন্নাইয়ে ৭৬.২৯ টাকা।
অন্যদিকে, শুক্রবারের ঘোষণায়, দিল্লিতে ডিজেলের দাম বেড়ে হয়েছে লিটার প্রতি ৬৭.০৮ টাকা, কলকাতায় ৬৯.৬৩ টাকা, মুম্বইয়ে ৭১.৪২ টাকা এবং চেন্নাইয়ে ৭০.০৮ টাকা। ১৩ মে এই দাম ছিল দিল্লিতে ৬৫.৯৩ টাকা, কলকাতায় ৬৮.৬৩ টাকা, মুম্বইয়ে ৭০.২০ টাকা এবং চেন্নাইয়ে ৬৯.৫৬ টাকা।
সূত্রের খবর, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে পেট্রলের দাম লিটারে ৪-৪.৫০ টাকা বাড়বে। এবং ডিজেলের দাম বাড়বে প্রতি লিটারে ৩.৫০ থেকে ৪ টাকা। তেল সংস্থাগুলির বক্তব্য, টানা ১৯ দিন দাম বাড়ানো হয়নি। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে যেভাবে তেলের দাম বেড়েছে তার সঙ্গে পাল্লা দিতে গেলে আগামী কয়েক দিনের মধ্যে তেলের দাম প্রতি লিটারে গড়ে অন্তত ৪ টাকা বাড়াতে হবে। তেল সংস্থাগুলির এই বক্তব্যে অশনি সঙ্কেত দেখছেন সাধারণ মানুষ। কর্ণাটকে ভোটের পর যেভাবে লাগাতার তেলের দাম বেড়ে চলেছে, তাতে জিনিসপত্রের দামও বাড়বে পাল্লা দিয়ে।

Comments
Loading...