অর্ণবের স্ত্রী, পুত্রের বিরুদ্ধেও এফআইআর! পুলিশের বিরুদ্ধে তাঁকে মারধরের পাল্টা অভিযোগ রিপাবলিক সম্পাদকের

অর্ণব গোস্বামীর পর এবার তাঁর স্ত্রী ও পুত্রের নামেও এফআইআর দায়ের হল। অভিযোগ, অর্ণবের গ্রেফতারির সময় পুলিশকর্মীদের বাধা দিয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী ও পুত্র। অভিযোগ এক মহিলা পুলিশকর্মীকে হেনস্থারও।

বুধবার সকালে মহারাষ্ট্রের রায়গড় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন রিপাবলিক টিভির এডিটর ইন চিফ অর্ণব গোস্বামী। তাঁকে ১৪ দিন জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি, অর্ণব গোস্বামীর স্ত্রী সাম্যব্রতা রায় ও ২০ বছরের পুত্রের বিরুদ্ধেও দায়ের হয়েছে এফআইআর।

মুম্বই পুলিশ সূত্রে খবর, বুধবার সকালে দক্ষিণ মুম্বইয়ের অভিজাত এলাকায় অর্ণব গোস্বামীর বাড়িতে যায় পুলিশ। কিন্তু অর্ণব গোস্বামীকে গ্রেফতার করতে গিয়ে বাড়ির লোকেদের বাধার মুখে পড়ে পুলিশ। এক মহিলা পুলিশ আধিকারিকে হেনস্থারও অভিযোগ উঠেছে অর্ণব গোস্বামীর স্ত্রী ও ছেলের বিরুদ্ধে।

এদিকে গ্রেফতারির সময় তাঁকে নিগ্রহ করা হয়েছে বলে আলিবাগের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে অভিযোগ করেন অর্ণব গোস্বামী। বলেন, তাঁকে শারীরিক নিগ্রহ করেছে পুলিশ। আদালত অবশ্য অর্ণব গোস্বামীর অভিযোগে আমল দেয়নি। পুলিশ আদালতে জানায়, অর্ণব গোস্বামী একজন প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব। বাইরে বেরোলেই প্রভাব খাটিয়ে মামলা লঘু করার চেষ্টা করবেন। তাঁকে এ বিষয়ে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার। তাই তাঁকে পুলিশ হেফাজতে দেওয়া হোক। আদালত দু’পক্ষের সওয়াল জবাব শোনার পর অর্ণবকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয়।

পাশাপাশি মানবাধিকার কমিশনে মুম্বই পুলিশ ও রায়গড় পুলিশের বিরুদ্ধে জুলুমের অভিযোগ দায়ের করেছেন সিদ্ধার্থ আচার্য নামে সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী।

Comments
Loading...