গঙ্গাজল ছিটিয়ে তাজমহলকে ‘শুদ্ধ’ করল বজরং দল

ইতিহমধ্যেই আগ্রার নাম বদলের প্রস্তাব তুলেছে বিজেপি। তাজমহলে মন্দির ছিল কিনা তা নিয়েও প্রশ তুলেছে হিন্দু সংগঠনগুলি। এবার তাজমহলের ভেতরে পুজো করে, গঙ্গাজল ছিটিয়ে তাকে ‘শুদ্ধ’ করল বজরং দল।
আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া শুক্রবার বাদে তাজমহলের মসজিদে নামাজ পড়া নিষিদ্ধ করেছে। তবে সেই নামাজে শুধু স্থানীয়রাই অংশ নিতে পারবেন। এই অবস্থায় তাজমহলকে ‘শুদ্ধ’ করতে ধূপধুনো দেখিয়ে ও গঙ্গাজল ছিটিয়ে পুজো ও আরতি করলেন স্থানীয় বজরং দলনেত্রী মীনা দিবাকর ও তাঁর অনুগামীরা।
তাজমহল না তেজো মহল এই নিয়ে বিতর্ক তুলেছিল বেশ কিছু হিন্দু সংগঠন। সেই বিতর্ক আরও বাড়িয়ে তুলল বজরং দল। রবিবারই তাদের তাজমহলে এই আরতি ও পুজো আর্চার ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপরই বজরং দলনেত্রীর এমন কাণ্ড তাজমহলের নিরাপত্তা নিয়ে বড় প্রশ্ন তুলে দেয়। ফুটেজটি সত্যি কিনা তা আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া খতিয়ে দেখছে। তবে এমনটা যে বজরং দল করতে চলেছে তার ইঙ্গিত অবশ্য আগেই মিলেছিল। রাষ্ট্রীয় বজরং দলের নেতা গোবিন্দ পরাশার শুক্রবারই হুমকি দেন, তাজমহলে পুজো করা হবে। পুজোর বিষয়ে জানতে চাইলে জানান, এএসআইয়ের নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনের কারণে যদি মুসলমানদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া না হয়, তাহলে হিন্দু কর্মীদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেয়া হবে?
শনিবার বজরং দলের বহু কর্মী, সদস্য পুজোর উদ্দেশ্যে মসজিদটিতে ঢোকেন। পুজো করেন। তারপরই তাজমহল মসজিদে ধূপবাতি জ্বালানো এবং সেখানে গঙ্গাজল ছেটানোর একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। পরে রক্ষণশীল ওই সংগঠনটির জেলা সভাপতি মীনা দেবাকর বলেন, মুসলমানরা যদি সারাদিন নামাজ পড়তে পারে, তাহলে হিন্দুরা কেন তাজমহলে পুজো দিতে পারবে না।

Comments
Loading...