ডেরেক সহ কংগ্রেস, সিপিএম, আপের ৮ সাংসদ রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড! কৃষি বিলের বিরোধিতায় বিক্ষোভের জের

মোদী সরকারের কৃষি সংস্কারের দুই বিল নিয়ে তোলপাড় সংসদের উচ্চ কক্ষ। রাজ্যসভা থেকে অবশিষ্ট অধিবেশনের জন্য সাসপেন্ড তৃণমূলের ডেরেক ওব্রায়েন, দোলা সেন, সিপিএমের কেকে রাগেশ, এলামারাম করিম কংগ্রেসের রাজীব সতাব, রিপুন বোরা, সৈয়দ নাসির হোসেন এবং আপের সঞ্জয় সিংহ।

পাশাপাশি ১২ টি বিরোধী দলের আনা রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবও খারিজ করে দিয়েছেন বেঙ্কাইয়া নাইডু।

রবিবার কৃষি সংস্কারের দুটি বিল পেশ হয় রাজ্যসভায়। বিরোধীদের দাবি ছিল, বিল পাঠানো হোক সিলেক্ট কমিটির কাছে। কিন্তু বিলের ব্যাপারে অর্ডিনান্স জারি করে ফেলা মোদী সরকার বাদল অধিবেশনেই বিল পাশ করাতে বদ্ধপরিকর। এর ফলে রবিবার রাজ্যসভায় তুমুল হই হট্টগোল শুরু হয়ে যায়। তৃণমূলের ডেরেক দাবি করেন ভোটাভুটির। কিন্তু ধ্বনিভোটে বিল পাশ করানোর সময় উত্তেজনার পারদ আরও চড়ে। রুল বুক নিয়ে ওয়েলে নেমে আসেন বিরোধী সাংসদেরা। ডেরেক রুল বুক নিয়ে ছুটে যান ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশের কাছে। সেই সময় মার্শালরা আটকান ডেরেককে। শুরু হয়ে যায় ধস্তাধস্তি। বিলের কপি ছিঁড়ে ফেলা হয়। চেয়ারম্যানের ডেস্কের মাইকও ধস্তাধস্তিতে ভেঙে যায়। রাজ্যসভা ১০ মিনিটের জন্য মুলতুবি করে দেওয়া হয়।

সোমবার অধিবেশনের শুরুতেই ডেরেক সহ ৮ সাংসদকে অধিবেশনের বাকি সময়ের জন্য সাসপেন্ড করার ঘোষণা করেন চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। তারপরই তিনি জানিয়ে দেন, ১২ টি বিরোধী দলের আনা ডেপুটি চেয়ারম্যানের উপর অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করা হচ্ছে। নিয়ম অনুযায়ী ১৪ দিন আগে নোটিস দিতে হয়। বিরোধীরা তা না দেওয়াতেই খারিজ হয়ে যায় অনাস্থার দাবি।

Comments
Loading...