বাড়ির দৈনন্দিন কাজের হাত থেকে বাঁচতে রোবট আবিষ্কার কিশোরের

বাড়ির দৈনন্দিন কাজের হাত থেকে বাঁচতে বাতিল হয়ে যাওয়া বৈদ্যুতিন সামগ্রী দিয়ে রোবট তৈরী করল মনিপুরের এক কিশোর। মনিপুরের বিষ্ণুপুর জেলার ১৭ বছরের কিশোর থিয়াম নন্দলাল বাড়ির পুরোনো মোবাইলের অংশ, হরলিক্সের বোতল, এলইডি লাইট, পাইপ, রিমোট কন্ট্রোল গাড়ির রিমোট, প্লাস্টিক বোতল ইত্যাদি দিয়ে তৈরী করল ‘জন ১৭’। এটি আর কেউ নয়,’জন ১৭’ তাঁর নির্মিত রোবটের নাম। নিজের স্কুল জনস্টন হায়ার সেকেন্ডারি স্কুল থেকে ‘জ’ অক্ষরটি,’ন’ অর্থাৎ নন্দলাল এবং ‘১৭’ বলতে ২০১৭ সালকে বোঝানো হয়েছে। সংবাদমাধ্যম এএনআই কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে নন্দলাল জানিয়েছে, বাড়ির বাতিল দ্রব্যসামগ্রী দিয়ে সে একটি অটোমেটিক রোবট তৈরী করেছে, যাতে টাইম সেট করে দিলে কোনও মানুষের নির্দেশ ছাড়াই সেটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক কাজ করতে পারে। নন্দলাল জানায়, বাড়ির বিভিন্ন কাজ বিশেষ করে মুরগিদের খাওয়ানোর বদলে নিজের পড়াশোনা ও ফুটবল খেলার জন্য সময় বের করতেই তার এই আবিষ্কার। জানা যায়, বছর ১৭ র নন্দলাল শুধুমাত্র টিভি দেখেই শিখেছে রোবট তৈরীর পদ্ধতি। মাত্র ১৫ থেকে ২০ দিন সময় নিয়েছে তার এই আবিষ্কারের জন্য। তার তৈরি এই রোবট যে কোনও মানুষের মতোই কাজ করতে সক্ষম। ২০ ফুট দূর থেকেও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে ‘জন ১৭’কে। মনিপুরের স্কুল শিক্ষা দপ্তরের পরিচালক নন্দলালের এই আবিষ্কারের জন্য ১০ হাজার টাকা পুরস্কার দিয়েছে। জনস্টন হাইস্কুলের সায়েন্স ল্যাবরেটরিই বর্তমানে এই রোবটের ঠিকানা।

Comments
Loading...