অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিন কোভিশিল্ডের ক্লিনিকাল ট্রায়াল পুনরায় শুরুর জন্য পুণের সিরাম ইনস্টিটিউটকে অনুমতি দিল ভারতের ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল (DCGI)।

মঙ্গলবার সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করার অনুমতি দিয়েছেন DCGI ভি জি সোমানি।

কিছুদিন আগে ইংল্যান্ডে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত ট্রায়ালে এক স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা দেওয়ায় বিদেশে অক্সফোর্ড টিকা কোভিশিল্ডের ট্রায়াল বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু কেন্দ্রকে তা না জানানোয় শো-কজ নোটিস পাঠানো হয় সেরাম ইনস্টিটিউটকে। ব্যাখ্যা চাওয়া হয়, বিদেশে কোভিশিল্ড ট্রায়াল বন্ধের পর কেন তা ভারতে চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে? পরে গত ১১ সেপ্টেম্বর ওই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল সাময়িক স্থগিত রাখতে সিরাম ইনস্টিটিউটকে নির্দেশ দেয় DCGI।

এখন অনুমতির সঙ্গে বেশ কিছু শর্তও আরোপ করা হয়েছে। সিরাম ইনস্টিটিউটকে বলা হয়েছে, স্ক্রিনিংয়ে তাদের আরও বেশি যত্নবান হতে হবে। স্বেচ্ছাসেবীর সম্মতিপত্রে আরও বেশি তথ্য জানাতে হবে। কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হচ্ছে কি না তার বিষয়ে আরও বিস্তারিত পর্যবেক্ষণ জরুরি। যদি ট্রায়ালে কোনও স্বেচ্ছাসেবীর শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায় তাহলে প্রোটোকল মেনে ডিসিজিআইকে তার বিশদ বিবরণ দিতে হবে। সেখানে উল্লেখ করতে হবে, কখন কী কী ওষুধ প্রয়োগ করা হয়েছিল।

এদিকে গত শনিবারই ব্রিটিশ-সুইডিশ বায়ো-ফার্মা সংস্থা অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন কোভিশিল্ডের ট্রায়াল আবার শুরু হয়ে গিয়েছে ইংল্যান্ডে। মঙ্গলবার তার ছাড়পত্র পেল ভারতের সিরাম ইন্সস্টিটিউটও।

ধারাবাহিকভাবে পাশে থাকার জন্য The Bengal Story র পাঠকদের ধন্যবাদ। আমরা যে ধরনের খবর করি, তা আরও ভালোভাবে করতে আপনাদের সাহায্য আমাদের উৎসাহিত করবে।

Login Support us

You may also like

Delhi Riot Chargesheet
Firms Can Hire And Fire