অনিল আম্বানীর বিদেশের সম্পত্তিতে নজর ৩ চিনা ব্যাঙ্কের, ক্রোক করে তোলা হতে পারে ঋণের বকেয়া অর্থ

২৫ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার ব্রিটেনের আদালতে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে হাজিরা দিয়ে অনিল আম্বানী জানিয়েছিলেন, ঘরের সোনাদানা বেচে আইনি খরচ যোগাতে হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে অনিল আম্বানীর বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে থাকা সম্পত্তির তালিকা তৈরি করছে পাওনাদার ৩ টি চিনা ব্যাঙ্ক। প্রয়োজনে সেই সম্পত্তি ক্রোক করে খরচ তোলার কথা ভাবছে ব্যাঙ্ক।

৩ টি চিনা ব্যাঙ্ককে ৫,২৭৬ কোটি টাকা দিতে হবে অনিল আম্বানীর সংস্থাকে। এছাড়া আইনি খরচ বাবদ আরও ৭ কোটি টাকা প্রাপ্য ব্যাঙ্কগুলোর। গত শুক্রবার ব্রিটেনের হাইকোর্টে এই মামলার শুনানি হয়। আদালত আগেই অনিল আম্বানীর সংস্থাকে এই অর্থ প্রদান করতে নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু টাকা ফেরত দিতে পারেননি একদা বিশ্বের ষষ্ঠ ধনকুবের অনিল আম্বানী।

মামলার শুনানিতে শুক্রবার অনিল আম্বানী সরাসরি না বললেও হাবে ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, বর্তমানে ঋণ পরিশোধ করার মতো সামর্থ তাঁর নেই। অভাবে চলছে তাঁর নিজের সংসার। অনিল আম্বানীর বক্তব্য শুনে চিনা ব্যাঙ্কের আইনজীবী পাল্টা আদালতকে বলেন, অবস্থা দেখে তো মনে হচ্ছে ঋণের এক টাকাও শোধ করবেন না বলে পণ করে বসে আছেন অনিল আম্বানী।

সূত্রের খবর, এরপরই আম্বানী বাড়ির ছোটছেলের সংস্থার বিশ্বজুড়ে সম্পত্তির দিকে নজর দিয়েছে মামলাকারী ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ। এদিকে ভারতে অনিল আম্বানীর যে সম্পত্তি রয়েছে তা বর্তমানে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার অধীনে। অনিল আম্বানীকে দেউলিয়া ঘোষণার প্রক্রিয়াও চলছে। সম্প্রতি দিল্লি হাইকোর্ট দেউলিয়া প্রক্রিয়ার উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে। এর ফলে চিনা ব্যাঙ্কগুলো চাইলেও অনিল আম্বানীর ভারতের সম্পত্তি ক্রোক করতে পারবে না। এই অবস্থায় আম্বানীর বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে থাকা সম্পত্তির হিসেব শুরু করছে তারা। অনিল আম্বানী হলফনামায় যে বিদেশি সম্পত্তির কথা উল্লেখ করেছিলেন, এবার তারই তালিকা তৈরি হচ্ছে চিনা ব্যাঙ্কে।

Comments
Loading...