সংস্কৃতে কথা বললে ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে, লোকসভায় দাবি বিজেপি সাংসদ গণেশ সিংহের

সংস্কৃত ভাষায় কথা বললে নাকি ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে, লোকসভায় এমনটাই দাবি করলেন বিজেপি সাংসদ (BJP MP) গণেশ সিংহ।
বৃহস্পতিবার লোকসভায় সংস্কৃত সেন্ট্রাল ইউনিভার্সিটিজ বিল নিয়ে বিতর্কে অংশ নিয়েছিলেন মধ্যপ্রদেশের সাতনার সাংসদ (BJP MP) গণেশ সিংহ। সেই বিতর্ক প্রসঙ্গেই তাঁর দাবি, স্নায়ুতন্ত্র ভালো রাখতে সংস্কৃত ভাষার জুড়ি মেলা ভার। নিয়মিত সংস্কৃত ভাষার চর্চা করলে, সংস্কৃতে কথা বললে ডায়াবেটিস, কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে থাকে। বিজেপি সাংসদের আরও দাবি, এ নিয়ে নাকি আমেরিকার বিখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গবেষণাও হয়েছে। তারাই জানিয়েছে সংস্কৃত ভাষার বিশেষ গুণাগুণের কথা। পাশাপাশি গণেশ জানান, যদি কম্পিউটার প্রোগ্রামিংয়ে সংস্কৃত ভাষার ব্যবহার শুরু হয়, তবে তা নিখুঁত হবে। এও নাকি নাসার বিজ্ঞানীদের গবেষণায় উঠে এসেছে।
সাতনার বিজেপি সাংসদ লোকসভায় জানান, বিশ্বের ৯৭ শতাংশ ভাষা, যার মধ্যে রয়েছে ইসলামি ভাষাও, সবই সংস্কৃত থেকে উদ্ভুত হয়েছে।
অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা ওড়িশার বিজেপি সাংসদ প্রতাপচন্দ্র সারেঙ্গি জানান, ‘ব্রাদার’, ‘কাউ’ এর মতো ইংরেজি শব্দ আসলে সংস্কৃত থেকে এসেছে। কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল লোকসভায় বলেন, সরকার সব ভারতীয় ভাষাকেই রক্ষা করতে বিশেষ উদ্যোগী হয়েছে। তা তামিল হোক বা হিন্দি অথবা বাংলা। সংস্কৃত শাস্ত্রকে জ্ঞানের ভাণ্ডার বলে মন্তব্য করেন তিনি। রমেশ বলেন, বিজ্ঞান থেকে অর্থশাস্ত্র সবই রয়েছে সংস্কৃত শাস্ত্রে। তাই আগামী প্রজন্মকে সংস্কৃতে শিক্ষাদান করা বিশেষ জরুরি।

Comments
Loading...