স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, বিনামূল্যে ইন্টারনেট সংযোগ, প্রতিশ্রুতির ছড়াছড়ি কর্ণাটকে কংগ্রেসের নির্বাচনী ইশতেহারে।

জল, কল, রাস্তাই শুধু নয় নির্বাচনী প্রচারে দেশের মানুষ পেয়েছে ১৫ লক্ষ টাকা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাওয়ার প্রতিশ্রুতিও। সেই তালিকায় এবার জায়গা করে নিল স্মার্ট ফোন এবং ল্যাপটপ। আসন্ন কর্ণাটক বিধানসভার নির্বাচনের জন্য যে ইশতেহার প্রকাশিত হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে ১৮ থেকে ২৩ বছর বয়স পর্যন্ত পড়ুয়াদের দেওয়া হবে স্মার্টফোন। এছাড়াও ইশতেহারে রয়েছে ল্যাপটপ এবং বিনামূল্যে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ওয়াই-ফাই সংযোগের প্রতিশ্রুতিও। শুক্রবার কর্ণাটকের ম্যাঙ্গালোরে এই ইশতেহার প্রকাশ করেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কংগ্রেসের অন্যান্য নেতারা ।
এদিন ইশতেহার প্রকাশিত হওয়ার পরেই কর্ণাটকের বিজেপি নেতৃত্ব অভিযোগ জানিয়েছেন, আসলে স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, বিনামূল্যে ইন্টারনেট সংযোগের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে রাজ্যের যুব সম্প্রদায়ের ভোটকে ইভিএম বন্দি করতে চাইছে কংগ্রেস। যদিও শুক্রবার ইশতেহার প্রকাশ করে রাহুল গান্ধী বলেন, এই ইশতেহার হলো নতুন কর্ণাটকের ইশতেহার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিশেষ বেতার অনুষ্ঠান ‘মন কি বাত’কে কটাক্ষ করে রাহুল তাঁদের ইশতেহারকে কর্ণাটকের মানুষের মন কি বাত বলে আখ্যা দেন। এদিন রাহুলের আরও কটাক্ষ, বিজেপির ইশতেহার তৈরি হবে বন্ধ ঘরে। তিন থেকে চার জন বিজেপি নেতা সেই ইশতেহার বানাবেন। আদতে সেটি হবে আরএসএসের ইশতেহার। উল্লেখ্য ২২৫ আসন বিশিষ্ট কর্ণাটক বিধানসভার নির্বাচন আগামী ১২ মে, গণনা ১৫ মে।

Comments
Loading...