৪ থেকে ৪৮! কোন মন্ত্রে হায়দরাবাদ পুর ভোটে বিজেপির চমকপ্রদ উত্থান?

শেষপর্যন্ত হায়দরাবাদ পুরনিগম দখল না হলেও, তারা যে আগামী ভোটে বিপক্ষ বিশেষ করে কেসিআরের দলকে কড়া টক্কর দিতে চলেছে তা বুঝিয়ে দিয়েছে বিজেপি। ১৫০ আসনের পুরসভা ভোটে কেবল দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবেই উঠে আসা নয়, কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি (টিআরএস)‌ কে পুরনিগমের ক্ষমতা ধরে রাখতে আসাদউদ্দিন ওয়েইসির মিমের উপর নির্ভরশীল করে দিল বিজেপি।

তেলুগুভাষী তেলেঙ্গানায় বিজেপির এই চমকপ্রদ ফলের কারণ কী? কীভাবে নিজামের শহরে দাপট দেখাল বিজেপি?

 

টিআরএস এর স্ট্র‍্যাটেজিক ভুল? 

হায়দরাবাদ পুরনিগমের ভোট প্রচারে টিআরএস বারবার দাবি করেছে বিজেপি-মিম বিচ্ছিন্নতাবাদী ইস্যুতে ভোট লড়ছে। কিন্তু একটু পিছন ফিরলে দেখা যাবে তেলাঙ্গানা আন্দোলনের সময় টিআরএস নিজেই অন্ধ্র ভেঙে দেওয়ার পক্ষে সরব হয়। ফলে বিচ্ছিন্নতার তকমা টিআরএসের উপর পাল্টা এসে জুটেছে। এই ইস্যুতে পারদ চড়িয়েছেন বিজেপির জেপি নাড্ডা, অমিত শাহ ও যোগী আদিত্যনাথের মতো নেতারা।

এদিকে, হায়দরাবাদ ভোটের আগে টিআরএস বারবার বিজেপিকে ‘দিল্লির পার্টি’ বলে প্রচার করেছে। বিজেপির শক্তিকে পাত্তা দিতে চাননি চন্দ্রশেখর রাও। বরং প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে তাঁরা বেছে নেন কংগ্রেসকে। এখান থেকেই ভোটের খেলা ঘুরিয়ে দিতে অনেকাংশে সাহায্য পেয়েছে বিজেপি বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। বাড়ি বাড়ি গিয়ে বিজেপিকে জেতানোর আবেদন জানিয়েছেন অমিত শাহ, জেপি নাড্ডার মতো শীর্ষ নেতা। হিন্দুত্বের পারদ চড়িয়েছেন আদিত্যনাথ। এর সুফল সরাসরি পৌঁছেছে গেরুয়া শিবিরের ভোট বাক্সে।  

 

কোথায় বিজেপি সবচেয়ে বেশি লাভবান? 

হায়দরাবাদ পুরনিগমের ভোটে ২০১৬ সালে বিজেপির সিট ছিল চারটি। সেখান থেকে এবার ৪৮ টি আসন দখল করার অন্যতম কারণ এলবি নগর ও সেকেন্দ্রাবাদে বিপুল শক্তিবৃদ্ধি। এখানেই পুরনিগম আসনের দুই তৃতীয়াংশ দখল করেছে গেরুয়া শিবির। সেকেন্দ্রাবাদ, খৈরতাবাদের মতো হায়দরাবাদের পুরনো জায়গাগুলি আরএসএসের স্ট্রং জোন। পাশাপাশি কিছুদিন আগে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ওই অঞ্চলের মানুষদের মধ্যে শাসক দল টিআরএসের বিরুদ্ধে ক্ষোভ তৈরি হয়েছিল। আর সেটাই পুরোদস্তুর কাজে লাগিয়েছে বিজেপি। 

আর একটা বিষয় মনে রাখা দরকার, অন্ধ্র বিভক্ত হওয়ার প্রেক্ষিতে তেলেঙ্গানার রাজনীতিতে শাসক হয়ে উঠে আসে চন্দ্রশেখরের টিআরএস। হায়দরাবাদ কখনওই টিআরএসের গড় নয়। বিশেষতঃ হিন্দি ও উর্দুভাষীদের জন্য তো নয়ই। ওই জায়গায় এবার ভোটের বড় অংশ কাটতে সক্ষম হল বিজেপি। তাছাড়া মুসলিম ভোট একচেটিয়াভাবে ঢুকেছে আসাদুদ্দিন ওয়েইসির ঝুলিতে। পাশাপাশি কংগ্রেসের দুর্বল উপস্থিতি হায়দরাবাদ ভোটে বিজেপির চমকপ্রদ ফলের অন্যতম কারণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

Comments
Loading...