Corona: দেশে আক্রান্ত ৪ হাজার, মৃত্যু ছাড়াল ১০০, ৮০ শতাংশ ঘটনাই ৬২ জেলায়! এই জেলাগুলিতে ১৪ এপ্রিলের পরও লকডাউন?

দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪ হাজার। মৃত্যু হয়েছে ১০০ জনের বেশি মানুষের। কিন্তু গোটা দেশে করোনা ছবিটা সমীক্ষা করতে গিয়ে উঠে আসছে এক চমকপ্রদ তথ্য। তথ্য বলছে, ভারতে করোনা আক্রান্তের ৮০ শতাংশ ঘটছে ৬২ টি জেলায়।
গত এক সপ্তাহের মধ্যে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বেড়েছে। জানা যাচ্ছে, মোট আক্রান্ত ও মৃত্যুর ৮০ শতাংশই ঘটেছে দেশের ৬২ টি জেলায়। কেন্দ্রীয় সরকারের একটি সূত্র বলছে, আগামী ১৪ এপ্রিল ২১ দিনের লকডাউন শেষ হওয়ার পরেও, এই ৬২ টি জেলায় কিছু কিছু নিষেধাজ্ঞা জারি থাকতে পারে।
সারা ভারত থেকে ২৭৪ টি জেলায় করোনা প্রভাব দেখা গিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫০৫ টি নতুন কেস আসার পর আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৪ হাজার, মৃত্যু হয়েছে ১০০ জনের বেশি মানুষের। ৩০ মার্চ দেশে করোনার পরিসংখ্যান ছিল, আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ২৫১ এবং মৃত ৩২।
স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসেব, ৪.১ দিনে দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। কেন্দ্রের দাবি, মার্চের মাঝামাঝি দিল্লিতে তাবলিঘি জামাতের সভা না হলে দেশে করোনা আক্রান্ত ও মৃতের পরিসংখ্যান আজ এই জায়গায় পৌঁছোত না।
স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এক সূত্র বলছে, দেশের মাত্র ৬২ টি জেলা থেকে ৮০ শতাংশ করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া গিয়েছে। সেই তথ্যের ভিত্তিতে গত দু’দিনে ওই জেলাগুলিতে টেস্টিংয়ের উপরও জোর দেওয়া হয়। আর তাতেই দেখা যায়, গত ক’দিনে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। আগামী কয়েকদিনে এই হার আরও বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এই পরিস্থিতিতে ‘ভিলওয়ারা মডেল’ এর প্রয়োগে এই ৬২ টি জেলা সিল করে দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে সরকার। গত মাসে রাজস্থানের ভিলওয়ারা করোনার হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হওয়ার পর পুরোপুরি সিল করে দেওয়া হয় ওই এলাকা। তাতে অনেকটা সংক্রমণ ঠেকানো গিয়েছে।
এদিকে দেশে করোনার যথোপযুক্ত টেস্ট হচ্ছে না, এমন সমালোচনার মধ্যে গত দু’দিনে পরীক্ষার হার প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। শনিবার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (ICMR) একটি নির্দেশিকা জারি করে নির্দিষ্ট কয়েকটি জায়গায় দ্রুত হারে করোনা টেস্টের নির্দেশ দিয়েছে। যে ২৭৪ টি জেলা থেকে করোনার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে সেখানে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬২ টি জেলায় চূড়ান্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

Comments
Loading...