লাল কেল্লার পর তাজমহল, চিতোড়গড় কেল্লাসহ মোট ২২টি সৌধ বেসরকারি সংস্থাকে দত্তক দেওয়ার সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

কেন্দ্রীয় সরকার লালকেল্লার মত ঐতিহাসিক সৌধের দেখভালের দায়িত্ব বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়ায় ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। সেই বিতর্কের মাঝেই জানা যাচ্ছে, ‘অ্যাডপ্ট অ্যা হেরিটেজ স্কিম’ এর অন্তর্গত দেশের আরও ২২টি সৌধ রয়েছে দত্তকের অপেক্ষায়। মোট ২২টি সৌধের দেখভালের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হবে নয়টি কর্পোরেট সংস্থার হাতে। মোট পাঁচটি রাজ্য এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে অবস্থিত এই ঐতিহাসিক সৌধগুলি। সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর, এই মূহুর্তে উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, দিল্লি, মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, তেলেঙ্গানার একাধিক সৌধ আছে এই তালিকায়।
আগ্রার তাজমহল, রাজস্থানের ঐতিহাসিক চিতোরগড় দূর্গ, মাউন্ট আবুর দিলওয়ারা মন্দির, রক ক্লাইম্বিং এর জন্য সংরক্ষিত নাক্কি লেক এলাকা, পুনের আগা খান প্রাসাদ,কর্ণাটকের হাম্পির বিখ্যাত কৃষ্ণ মন্দির, পদ্ম মহল, দিল্লির মেহেরুলি আর্কিওলজিক্যাল পার্ক। এছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে অন্যান্য ইতিহাস প্রসিদ্ধ বেশ কিছু সৌধ। লালকেল্লাকে পাঁচ বছরের জন্য ২৫ কোটি টাকায় মোদী সরকারের দত্তক নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার দেশের মানুষ থেকে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত সকলেই। যদিও কেন্দ্রীয় সরকারের সাফাই, অযথা এই নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে দেশজুড়ে। আসলে ইতিহাসের দলিল এই সব সৌধ রক্ষণাবেক্ষনের জন্য এটি সব থেকে সেরা পথ।

Comments
Loading...