গাঁটছড়া বাঁধছেন লালু পুত্র তেজ প্রতাপ। পাত্রী ঐশ্বর্যা রাই

কথায় বলে নামে কী যায় আসে! কিন্তু পাত্র যখন লালু প্রসাদ যাদবের ছেলে এবং পাত্রীর নাম যখন ঐশ্বর্যা রাই, তখন নামে আসে যায় বইকি। আগামী ১২ মে পাটনার মৌর্য্য হোটেলে বসতে চলেছে আরজেডি সুপ্রিমো লালু প্রসাদ যাদবের বড় ছেলে তেজ প্রতাপ যাদবের বিয়ের আসর। পাত্রী ঐশ্বর্যা রাইও রাজনৈতিক পরিবার থেকেই উঠে এসেছেন। তাঁর দাদু ছিলেন বিশিষ্ট কংগ্রেস নেতা দারোগা প্রসাদ রাই। রাষ্ট্রপতি শাসন চলাকালীন ১৯৭০ সালে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। ঐশ্বর্যার বাবা চন্দ্রিকা প্রসাদ রাই হলেন আরজেডি বিধায়ক এবং রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। ঐশ্বর্যার মা পূর্ণিমা রাই পাটনা ওমেন্স কলেজের সহকারী অধ্যাপক। তিন সন্তানের মধ্যে ঐশ্বর্যাই বড়। তাঁর এক ভাই ও এক বোনও রয়েছে।

গ্র্যাজুয়েশন পাস করে এমবিএ নিয়ে পড়াশোনা করেছেন ঐশ্বর্যা রাই। অন্যদিকে তেজপ্রতাপ রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। ২০১৫ সালে বিহার বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর নিতীশ কুমার মন্ত্রিসভায় স্বাস্থ্য এবং পরিবেশমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। বিয়েতে যোগ দেওয়ার জন্য বুধবারই লালু প্রসাদ যাদবকে পাঁচ দিনের প্যারোলে মুক্তির নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পশু খাদ্য কেলেঙ্কারীতে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ১৪ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে তাঁর। বর্তমানে চিকিৎসার জন্য তিনি রাঁচির এক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

Comments
Loading...