মিশন ত্রিপুরা: বিজেপির উপর চাপ বাড়িয়ে আগরতলা আসছেন মমতা, ত্রিপুরাবাসীকে ট্যুইটে শুভেচ্ছা

প্রতিবেশী রাজ্য ত্রিপুরার সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রথমবার শুভেচ্ছা বার্তা তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির। শনিবার কের পুজো উপলক্ষ্যে ত্রিপুরাবাসীকে ট্যুইটে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তিনি। রাজনৈতিক শিবিরের মতে তৃণমূল সুপ্রিমোর এই ট্যুইট অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ একটি ঘটনা।

পাশাপাশি ত্রিপুরার তৃণমূল সমর্থকদের পক্ষ থেকে শনিবার একটি ট্যুইট বার্তায় জানানো হয়, দলের সাংগঠনিক প্রস্তুতির প্রাথমিক কাজ শেষ হলেই মমতা ব্যানার্জি ত্রিপুরার মাটিতে পা রাখবেন।

পশ্চিবঙ্গের পর তৃণমূলের দ্বিতীয় শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত প্রতিবেশী রাজ্য ত্রিপুরা। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে জয় লাভের পরেই ত্রিপুরায় সংগঠন বিস্তারের পরিকল্পনা নিয়েছে তৃণমূল।

টিম পিকের সদস্যদের আটকের ঘটনায় ইতিমধ্যেই ত্রিপুরায় পৌঁছে গিয়েছেন একাধিক তৃণমূল নেতৃত্ব। ব্রাত্য বসু, ডেরেক ও’ব্রায়েন, মলয় ঘটকরা ত্রিপুরাতে রয়েছেন। জানা যাচ্ছে শনিবার ত্রিপুরা যাচ্ছেন তৃণমূলের একগুচ্ছ যুব নেতৃত্ব। দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহারা ত্রিপুরা যাচ্ছেন।
সূত্রের খবর সোমবার দিন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জিও যাবেন ত্রিপুরায়।

২০২৩ ত্রিপুরায় বিধানসভা ভোট। একুশে বাংলা জয়ের পর তৃণমূল শিবির আত্মবিশ্বাসী ত্রিপুরা নিয়ে। জানা গিয়েছে ১৬ আগস্ট তৃণমূলের খেলা দিবস পালিত হবে ত্রিপুরাতেও। এর আগেও একুশে জুলাই পালন করতে গিয়ে সেখানকার একাধিক কর্মী সমর্থককে গ্রেফতার হতে হয়। ত্রিপুরার স্থানীয় নেতৃত্বের দাবি, তৃণমূলের উত্থানে বিপ্লব দেব সরকার আতঙ্কিত। যার জেরেই পুলিশ দিয়ে তৃণমূলকে আটকাতে চাইছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, তৃণমূলের প্রথমসারির নেতৃত্বের ত্রিপুরায় গিয়ে থাকা, অভিষেক ব্যানার্জির যাওয়া, এবং তৃণমূল নেত্রীর এই ট্যুইটে থেকে স্পষ্ট যে ২৩ এর ‘খেলা’র জন্য এখন থেকেই জোর কদমে প্র্যাকটিস শুরু করে দিয়েছে ঘাসফুল শিবির।

Comments
Loading...