আগে সবাই মিলে শান্তি প্রতিষ্ঠা করুন, শাহিনবাগ মামলা মুলতুবি সুপ্রিম কোর্টের, দিল্লি পুলিশকে ‘পেশাদারিত্ব’ খোঁচা

সব রাজনৈতিক দলকে এখন উত্তাপ কমানোর জন্য সচেষ্ট হতে হবে, শাহিন বাগের প্রতিবাদীদের সরানো সংক্রান্ত মামলার শুনানি ২৩ মার্চ পর্যন্ত মুলতুবি রেখে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল, সব রাজনৈতিক দলকে এখন হিংসার উত্তাপ কমানোর জন্য সচেষ্ট হতে হবে।
শীর্ষ আদালতের তরফে দায়িত্বপ্রাপ্ত মধ্যস্থতাকারী আইনজীবী সঞ্জয় হেগড়ে ও আইনজীবী সাধনা রামচন্দ্রন সোমবার শাহিন বাগ নিয়ে রিপোর্ট জমা দিয়েছেন আদালতে। শাহিন বাগ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলে এই আন্দোলন অন্যত্র সরানোর জন্য দুই মধ্যস্থতাকারীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল, যাতে দীর্ঘ দু’মাস ধরে বন্ধ থাকা রাস্তায় যান চলাচল শুরু হতে পারে। যদিও মধ্যস্থতা থেকে তেমন কোনও সমাধানসূত্র বেরিয়ে আসেনি।
এদিকে সিএএ-র বিরোধী ও সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জেরে অশান্তির আগুন জ্বলছে উত্তর দিল্লিতে। মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের, আহতের সংখ্যা দেড়শো ছাড়িয়েছে। এই প্রেক্ষিতে বুধবার সুপ্রিম কোর্ট জানায়, আপাতত সব রাজনৈতিক দলকে এক হতে হবে। এই অশান্তির উত্তাপ কমানোর কাজ করতে হবে তাদের।
প্রসঙ্গত, সিএএ, এনআরসি ও এনপিআর বিরোধী আন্দোলনে গত দু’ মাসে বারবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে শাহিন বাগ। ‘শয়ে ‘শয়ে মহিলা, বৃদ্ধা কেন্দ্রের নয়া নাগরিকত্ব আইন, নাগরিকপঞ্জির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছেন। তাঁদের অভিযোগ, কেন্দ্রের নয়া আইনে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের নাগরিকত্বে আঁচ পড়বে। এদিকে দীর্ঘদিন ধরে শাহিন বাগের আন্দোলনের ফলে নিত্যযাত্রীরা সমস্যায় পড়ছেন, নয়ডা থেকে দিল্লি সংযোগকারী শাহিন বাগ রাস্তা ‘অবৈধভাবে’ বন্ধ করে আন্দোলন চালানো হচ্ছে, এমন অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন জমা পড়েছিল। যদিও বুধবার এই মামলার শুনানি সুপ্রিম কোর্ট আগামী ২৩ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত রাখল।

Comments
Loading...