মদ বিক্রি বন্ধের দাবিতে হওয়া মামলা খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, তবে হোম ডেলিভারি চালুর পক্ষে সওয়াল

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে রাজ্য সরকারগুলির উচিত মদের হোম ডেলিভারি বা পরোক্ষ বিক্রির ব্যাপারে বিবেচনা করা, জানাল সুপ্রিম কোর্ট। লকডাউনের মধ্যে দোকান থেকে মদ বিক্রির উপরে শুক্রবার কোনও স্থগিতাদেশ দেয়নি শীর্ষ আদালত।  তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ‘পরোক্ষ বিক্রি বা হোম ডেলিভারি’র বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করে দেখার জন্য রাজ্যগুলিকে পরামর্শ দিয়েছে বিচারপতি অশোক ভূষণ, বিচারপতি সঞ্জয় কিষাণ কোল ও বিচারপতি বি আর গভাইয়ের বেঞ্চ।
লকডাউন চলাকালীন দোকান থেকে মদ বিক্রির উপরে নিষেধাজ্ঞা জারির আর্জি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল। পিটিশনার অভিযোগ করেন, মদের দোকান খোলার ফলে বহু মানুষ জড়ো হচ্ছেন, এতে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা প্রবল।
শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সে এই মামলা শোনেন সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতি। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তিন বিচারপতি জানান, ‘সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য মদের পরোক্ষ বিক্রি বা হোম ডেলিভারির বিষয়টি রাজ্যগুলির বিবেচনা করা প্রয়োজন। তবে এই বিষয়ে আমরা কোনও নির্দেশ দেব না।’
মামলার শুনানিতে আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী জে সাই দীপক সওয়াল করেন, স্বল্প সংখ্যক মদের দোকান খোলার অনুমতি থাকায় এবং দোকানের সামনে লাইনের হুড়োহুড়ির মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা অসম্ভব। শুধুমাত্র মদ বিক্রির জেরে যাতে সাধারণ মানুষ যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, তা নিশ্চিত করার প্রয়োজন বলে জানান তিনি। পাশাপাশি মদ বিক্রি নিয়ে প্রতিটি রাজ্যকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে একটি স্পষ্ট গাইডলাইন দেওয়া প্রয়োজন বলেও দাবি করেন মামলাকারীর আইনজীবী।

কনটেইনমেন্ট জোন ছাড়া গত ৪ মে থেকে দেশের অধিকাংশ রাজ্যেই মদের দোকান খুলে গিয়েছে। আর প্রথমদিনই বিভিন্ন শহরে এক-একটি দোকানের সামনে উপচে পড়ে ভিড়। অধিকাংশ জায়গাতে লেশমাত্র সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মানা হয়নি। করোনাভাইরাসের জেরে প্রায় সব কাজ বন্ধ, সেখানে মদ দোকান খোলা রাখার যুক্তি কোথায়, সে প্রশ্নও তোলা হয় জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে। সেই মামলাতেই হোম ডেলিভারির পক্ষে সওয়াল করল শীর্ষ আদালত।

Comments
Loading...