বেসনের লাড্ডু: অল্প উপাদানেই মিষ্টিমুখ হয়ে যাক, কীভাবে বানাবেন?

পুষ্টিগুণের কথা মাথায় রেখে অল্প কিছু সহজ উপকরণ দিয়ে বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন বেসনের লাড্ডু।

মাঝেমধ্যেই মিষ্টির জন্য মনটা বড্ড ছটফট করে! খুব প্রিয় না হলেও অসময়ে মন মিষ্টির পানে হাতছানি দেয়। আজকাল গোলির মোড়ে মোড়ে ব্যাঙের ছাতার মত গজিয়ে উঠেছে মিষ্টির দোকান। মনের সাধ মেটাচ্ছে তারাই। কিন্তু দোকানের মিষ্টি আর বাড়িতে নিজে হাতে তৈরি করা মিষ্টির মধ্যে রয়েছে আকাশ-পাতাল তফাৎ। নামিদামি মিষ্টির দোকান ছাড়া ছোটখাটো দোকানগুলি স্বাস্থ্য গুণের কথা তোয়াক্কা না করে ফুড কালার দিয়ে মিষ্টি প্রেমীদের মনে আকৃষ্ট করতে ব্যস্ত।

বাঙালি ভুলতে বসেছে, এমন অনেক মিষ্টি আছে যা সহজ কিছু উপকরণ দিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে নেওয়া যায় এবং যত্ন নিয়ে বানালে তার দোকানের চেয়ে কোন অংশে কম হয় না। তাই পুষ্টিগুণের কথা মাথায় রেখে অল্প কিছু সহজ উপকরণ দিয়ে বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন বেসনের লাড্ডু। আপনাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা এর সঙ্গে পূর্ব পরিচিত নন।

 

উপকরণ

বেসন: ১ কাপ

চিনি: ১ কাপ

 ঘি: ১ কাপ

সামান্য বড়ো এলাচের গুঁড়ো

ছোটো ছোটো টুকরো করে কাটা নানা ধরনের বাদাম, না দিলেও চলবে

পদ্ধতিঃ প্রথমে চিনি আর আধ কাপ জল নিয়ে গ্যাসে বসান। ফুটে গাঢ় হয়ে গেলে গ্যাস বন্ধ করে নামিয়ে নিন। বাড়িতে জাফরান থাকলে ২-৩ টে চিনি গোলা পাত্রে দিয়ে দিন, এতে করে রসে সুন্দর গন্ধ হবে। এবার নন স্টিক ফ্রাই প্যানে বেসন নিয়ে কম আঁচে নাড়াচাড়া করুন। বাদামের কুচি আর এলাচের গুঁড়ো দিয়ে দিন। সুগন্ধ বেরোলে ঘি মেশান সাবধানে। পুরোটা মিশে গেলে রসটাও একইভাবে মিশিয়ে দিন সাবধান। এবার স্প্যাটুলা দিয়ে নেড়ে ভালো করে মেশাতে হবে। ধারে ঘি ভেসে উঠলেই বুঝবেন মিশ্রণ রেডি। নামিয়ে অল্প ঠান্ডা করেই হাতে অল্প ঘি মাখিয়ে লাড্ডু বানিয়ে ফেলুন। বেসনের লাড্ডু ফ্রিজের বাইরেও বেশ কিছুদিন ভালো থাকে আর ফ্রিজে রাখলে তো কথাই নেই।

Comments
Loading...